মঙ্গলবার, ১৬ Jul ২০২৪, ০৬:১৪ পূর্বাহ্ন

Notice :
সারা বাংলাদেশ ব্যাপী বিভিন্ন জেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে..........চট্টগ্রাম অফিস: সৈয়দ নূর বিল্ডিং , এম এ আজিজ রোড, সিমেন্ট ক্রসিং, দক্ষিণ হালিশহর, চট্টগ্রাম।মোবাইল নাম্বারঃ ০১৯১১৫৩৩৩০৮, ০১৭১১৪৬৭৫৩৭, E-mail: gsmripon@gmail.com
সংবাদ শিরোনাম:
লিঙ্গ বৈচিত্রময় হিজড়া জনগোষ্ঠীর নিরাপদ, সুষ্ঠু ও সুন্দর শিক্ষা ব্যবস্থাই আমাদের লক্ষ্য পবিত্র আশুরা ২০২৪ উদ্‌যাপন উপলক্ষ্যে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত। ইপিজেড থানার অভিযানে অজ্ঞান পার্টির তিন সদস্য গ্রেফতার। আমার দরজা সবার জন্য সবসময় খোলা “মিট দ্য প্রেস” এ সিএমপি কমিশনার। ৪০০ কেজি সামুদ্রিক মাছ জব্দ ও ১লক্ষ ১৬ হাজার ৫০০ টাকা নিলাম আবুল কালাম হত্যাকাণ্ডের ক্লুলেস মামলার পলাতক আসামি আরিফ হোসেন’কে ৭২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৭ ৮০০ কেজি সামুদ্রিক মাছ জব্দ ও ১লক্ষ ৭০ হাজার টাকা নিলাম মোবাইলে খেলতে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের শিশু’কে ধর্ষণ আটক -১ র‍্যাব-৭ ও র‍্যাব-১১ বেসরকারী পর্যায়ে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল চিকিৎসা সেবায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে – ডাঃ সামন্ত লাল সেন- স্বাস্থ্য মন্ত্রী নীলফামারীতে সড়ক পারাপারে শিশুর নির্মম মৃত্যু,,!!

পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে উৎখাতের পায়তারা ও সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন।

 

পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে উৎখাতের পায়তারা ও
সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন।

ডেক্স নিউজ ঃ চট্টগ্রাম 

পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে উৎখাতের পাঁয়তারা ও সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ৮ নভেম্বর চট্টগ্রামের আগ্রাবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন একটি অসহায় পরিবার। সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে, আগ্রাবাদের শেখ মুজিবুর রোড, বাদামতলী এক অসহায় ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে মোমতাজ হোসেন বলেন, আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি পিতা ও দাদার জমিতে কষ্টার্জিত অর্থ দিয়ে নির্মানকৃত বিল্ডিং আমাদের একমাত্র মাথাগোজার ঠাই। বর্তমানে সন্ত্রাসীদের অত্যাচার হামলার কারণে বসবাস করতে পারছি না। আমাদের পরিবার নিয়ে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি। সাংবাদিক সম্মেলনে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা আরোও বলেন, দীর্ঘ ১৬ বছর যাবত আমরা এই নির্যাতনের শিকার।

 

সন্ত্রাসীদের হামলা মামলায় আজ আমরা জর্জরিত। প্রশাসনের দারে দারে ঘুরেও আমরা সঠিক বিচার পাই নাই। লিখিত বক্তব্যে উঠে আসে আগ্রাবাদ শেখ মুজিব রোড বাদামতলী সুফিয়া ভিলায় বসবাসরত অসহায় পরিবারটি মানবেতর জীবনের চিত্র। উল্লেখ্য ৫ ভাই ৪ বোন পিতা-মৃত মোহাম্মদ ইসলাম গুনু মিয়া টেন্ডলের বাড়ী সুফিয়া ভিলা, ল্যান্ড মার্ক হোটেলের পিছনে, শেখ মুজিব রোড, বাদামতলী, থানা- ডবলমুরিং, জেলা-চট্টগ্রাম। ভুক্তভোগীদের পিতা মোহাম্মদ ইসলামের মৃত্যুর পরে তাদের দাদা মৃত গুনু মিয়া টেন্ডল উক্ত পরিবারের ৯ ভাইবোনের মধ্যে দানপত্র দলির মূলে ২.৩৮ শতাংশ সম্পত্তি দান অর্পন করেন। যাহার দাগ নং তপশীলে বি.এস. খতিয়ান ১১৫৩৩, ১১৫৩১,১১৫২৮ নং দাগ মূলে নাতি নাতনীদেরকে দান করেন। এরপরে গুনু মিয়া হইতে তার পুত্র মৃত ইসলামের সূত্রে অর্থাৎ তাদের পিতার সূত্রে এবং ৪ ভাইয়ের খরিদা মোট ৪.২৮ শতক বা ২/৮ দন্ত বা ১৮৪৯ বর্গফুট জমি পেয়ে থাকি। যেখানে ২০০৫ সালে ৪ ভাই ও ৪ বোনের সহযোগিতায় তাদের প্রাপ্ত সম্পত্তির উপরে ৪তলা একটি বিল্ডিং নির্মাণ করা হয়। যেখানে তাদের ভাই মৃত গুলজার হোসেনের প্রাপ্ত সম্পত্তি বাদ দিয়ে তাদের সম্পত্তির উপরে বিল্ডিং করে । মৃত ঐ ভাইয়ের ওয়ারিশ হিসাবে যতটুকু সম্পত্তি পাবে তা আলাদা করে দেয়া হয়। কিন্তু মৃত গুলজার হোসেনের স্ত্রী হাফসা বানু ও তার ছেলে রিয়াজ তাজিম রাফি ও ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী তাদের ভবনের ২য় তলা জোরপূর্বক দখল করে রেখেছে বলে জানান। ভুক্তভোগীরা লিখিত বক্তব্যে আরোও বলেন, ঐ ভবনে প্রায় সময় দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে রাতদিন আমাদের সন্তান ও আমাদেরকে বিল্ডিং ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিচ্ছে এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদেরকে হয়রানি করছে। বিগত ২০২১ সালের অক্টোবর মাসের ১৪ তারিখ ভাড়াটিয়ার সন্ত্রাসী আব্দুল ওয়াহেদ, নজুসহ অজ্ঞাত পরিচয়ের ১০-১৫ জনের সন্ত্রাসী দ্বারা আমাদের ওপর হামলা চালায়। ভবনের বিদ্যুতের লাইন বিচ্ছিন্ন সহ আমাদের বড় ভাইয়ের পরিবারের স্ত্রী এবং মেয়েকে হামলা করে দরজা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে আসবাবপত্র ভেঙ্গে ভাঙচুর করে। আমার ভাইয়ের মৃত্যুর পরে পুরো সংসার আমরা ঠিকিয়ে রেখেছি। কিন্তু বর্তমানে তার স্ত্রী হাফসা বেগম ও তার ছেলে রিয়াজ তাজিম রাফি তাদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের আমরা প্রতিনিয়ত জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এই ব্যাপারে হামিদা বাদী হয়ে চীপ মেট্রোপলিটন আদালতে একটি ফৌজদারি অভিযোগ দায়ের করেন যার সি.আর. মামলা নং ১০২৬/২০২১। এছাড়া আমাদেরকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন ফেসবুকে বিভিন্ন রকম মিথ্যা বানোয়াট, ভিত্তিহীন, কুরুচিপূর্ন সংলাপ ও প্রসাশনকে জড়িয়ে বিভিন্ন স্ট্যাটাস দিচ্ছে। বর্তমানে আমাদের পরিবার পরিজন নিয়ে যাওয়ার মতো কোনো স্থান নাই। প্রশাসনের কাছে আকুল আবেদন আমাদের কষ্টার্জিত ভাইবোনের সম্পদগুলো এভাবে জবরদখল হয়ে গেলে আমাদের রাস্তায় দাঁড়াতে হবে। উক্ত সন্ত্রাসী হামলার আমরা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমরা যাতে জানমালের নিরাপত্তা নিয়ে বাঁচতে পারি সে বিষয়ে প্রশাসনের কাছে আকুল আবেদন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে“আমাদের বাঁচতে দিন”। সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ভুক্তভোগী পরিবারের মমোতাজ উদ্দীন, দেলোয়ার হোসেন, জাকির হোসেন, আমির হোসেন, শাহজাহান বেগম, নুরজাহান বেগম ও শাহানাজ বেগম।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2023 Channel69tv.net.bd
Design & Development BY ServerNeed.com